Saturday, April 1, 2006

ভাবনার স্প্রে ০০৪

৪. মগজের ভেতর চেতনার লোডশেডিং

এবার আসুন, কিছুক্ষণ আপনাকে বিভ্রান্ত করি।

উপরের বাক্যটা কি 'অনৈতিক' শোনাচ্ছে?

তাহলে অলঙ্কার লাগাই : আসুন, কিছুক্ষণ আপনাকে বিভ্রান্ত হবার পথগুলো দেখাই।

বিভ্রান্ত হবার অসংখ্য পথ খোলা। স্বাধীন দেশের মুক্ত নাগরিক যেহেতু, কোন পথে বিভ্রান্ত হবেন, এটা বেছে নিতে কেউই আপনাকে বিরক্ত করবে না। কারো অতো সময় নাই!

তাহলে শুরু করি এ প্রশ্ন দিয়ে: 'বিভ্রান্ত হবেন না কেন?'

মার্ক্সবাদের গায়ে ইসলামের পাঞ্জাবি পড়াচ্ছেন ফরহাদ মজহার, জিয়াউদ্দিন সরদার, আবুল কাশেমরা। ইসলামের গায়ে বিজ্ঞানের জ্যাকেট পড়াচ্ছেন ডক্টর শমসের আলী। (দেশী মরিস বুকাইলি!)

বিজ্ঞানের গায়ে মরমীবাদের হিজাব পড়াতে শুরু করেছেন 'কসমস'খ্যাত কার্ল স্যাগান।

ওই যে দূরে দেখছেন, চিন্তা ফর্সা করার জন্য মগজে 'রিলিজিয়াস কসমোলজি' আর নিওপ্যানথিজমের ক্রিম মাখছেন বিজ্ঞানের ডিগ্রিওলা ধার্মিক। এবং সে ক্রিম সবাইকে মাখার 'অনুরোধ' করছেন। সহজভাষায় লেখা বলে লুফে নিচ্ছেন হ্যারিপটার্সীয় পাঠক। দেখতে পাচ্ছেন?

হাল আমলের হারুন ইয়াহিয়ার (মূল নাম আদনান অক্তার) কাছে চলুন। মাল্টিমিডিয়াসমৃদ্ধ 'বিজ্ঞানভিত্তিক ইসলামবাদ'-এর বদৌলতে তিনি বেশ জনপ্রিয় হচ্ছেন 'বামধারার ইসলামী' সংগঠনগুলোর মধ্যে। হারুন ইয়াহিয়ার ভিডিও সিডি চালিয়ে ভলিউমটা বাড়িয়ে দিন। বস্তুবাদের বিপক্ষে ঝুনঝুনির আওয়াজ পাওয়া যাবে।

এরকম আরও নানারকম বিন্যাস-সমাবেশ (পারমুটেশন-কম্বিনেশন) চলছে মতাদর্শের রাজনীতিতে। কেউ মৌলবাদের গায়ে নিরপেক্ষতার শার্ট পড়ান, কেউ অজ্ঞেয়বাদের নাম দিয়ে দেহতত্ত্বের লিপস্টিক মাখিয়ে দেন।

প্রাতিষ্ঠানিক ধর্মকেন্দ্রিক ক্ষমতার রাজনীতি পুরনো চালবাজি। অন্য কোনো দিকে না তাকিয়ে শুধু তার বিপক্ষেই লড়ে যাচ্ছেন এক দল। এদিকে ফাঁক গলে জ্ঞানপাপী আর সুবিধাবাদীদের সংখ্যা বাড়ছে। ধর্ম ছেড়ে ধর্মনিরপেক্ষতা, মানবতা, আধুনিকতা, আর মুক্তচিন্তার মতো অন্যান্য সংবেদনশীল শব্দের পসরা সাজিয়েছেন তারা। অঞ্চলভেদে শব্দগুলো পাল্টে দেয়া হয় শুধু। সমার্থক ধারণার ইনজেকশান ঠিকই ঢুকছে আমাদের মগজের কোষে। রাজনৈতিক স্বার্থসিদ্ধির জন্য 'যুক্তিবাদ' আর 'বুদ্ধিবাদ' ব্যবহারের খবরও শোনা যায়। ভারতে প্রবীর ঘোষের 'অলৌকিক নয় লৌকিক'-এর সব খণ্ড আবার ছাপা হয়েছে। বইয়ের ভূমিকায় দেখি, পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী খুব প্রশংসা করেছেন। রাজনৈতিক প্রশংসা!

বুদ্ধিবৃত্তিক রাজনীতিতে ডিজুস-বিপণন-কৌশল!

তবে কি মুক্তচিন্তা, মানবতা বলে কিছু নেই? সব ব্যবসায়িক বুজরুকি? এ প্রশ্ন করেছেন বলে ধন্যবাদ। উত্তরটা খোঁজার চেষ্টা করবো আমরা।

তার আগে প্রথম প্রশ্নটা মাথায় রাখুন : বিভ্রান্ত হবেন না কেন?

[- পরবর্তী কিস্তি : ভাবনার স্প্রে ০০৫ -]

1 comment:

agni said...

বা! ভাল বলেছেন।
বিশ্লেষণভঙ্গি, উপমারূপকের অনবদ্য ব্যবহার, উপস্থানার নতুনত্ব সবকিছু মিলে লেখাটি কিরকম উপাদেয় ও সুস্বাদু হয়েছে তা ভাষায় প্রকাশ করা আমার মত নাদানের পক্ষে অসম্ভব একটি ব্যাপার।

অনেক অনেক ধন্যবাদ।

Post a Comment